জঙ্গলমহল থেকে কলকাতার পথশিশুদের পুজোয় নতুন জামা তুলে দিচ্ছে ডিউস

Share with Friends

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঘাটাল: পুজো মানেই নতুন জামার গন্ধ। কিন্তু অনেকের কাছেই তা নয়। বছরের এই বিশেষ সময়েও শিশুদের একটা জামা কিনে দিতে পারেন না তাদের বাব মা। এমনই দুঃস্থ পথশিশুদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল দাসপুর ইউফোরিক ওয়েলফেয়ার সোশ্যাইটি (ডিউস)। এবার পুজোয় জঙ্গলমহল, ঘাটাল, কলকাতার পথ শিশুদের মধ্যে জামা কাপড় বিলির কর্মসূচি নিয়েছে তারা।

দুর্গাপূজা শুরু হতে  আর বেশি দেরি নেই। কুমোরটুলিতে চলছে প্রতিমা তৈরির ব্যস্ততা। দোকানে দোকানে মানুষের ভিড় উপচে পড়ছে নতুন পোশাক কেনার জন্য। চারিদিকেই পুজো পুজো গন্ধ। অথচ এই বাংলাতেই প্রান্তিক শ্রেণির কিছু মানুষ থাকেন যাদের কাছে দুর্গাপুজোয় নতুন জামা পরা  বিলাসিতা ছাড়া আর কিছুই নয়। বলা ভালো দুর্গাপুজোয় নতুন জামা কেনার কোনও সামর্থই তাদের নেই। ছেঁড়া,মলিন বস্ত্র পরেই এরা প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে ঘুরে বেড়ায়।

তাদের এই অসহায় অবস্থার কথা উপলব্ধি করে ডিউসের সদস্যরা এই বার এক অভিনব উদ্যোগ নিয়েছেন। এবার পুজোয় তারা সাধ্যমত জঙ্গলমহল, ঘাটাল ও কলকাতার অসহায় শিশু, পথশিশুদের হাতে নতুন জামা তুলে দিতে চলেছেন।

সোসাইটির সম্পাদক তথা রামকৃষ্ণ মণ্ডল ইনস্টিটিউট অফ এডুকেশনের টিচার ইন চার্জ  ডক্টর সুমন্ত কুমার খাঁড়া বলেন, “ প্রতিবছর আমরা দুর্গামণ্ডপের আশেপাশে ছেঁড়া ফাটা পোশাক পরে অনেক শিশুদের ঘুরতে দেখি। ওদের করুণ মুখ দেখে খুব কষ্ট হতো। তাই এবার ডিউসের এর সদস্যরা ঠিক করেছে যে এই দুর্গাপুজো  শুরু হবার পূর্বে আমরা বেশ কিছু অসহায় শিশুর হাতে নতুন পোশাক তুলে দেব। ইতিমধ্যেই সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ আমাদের অর্থ বা নতুন পোশাক কিনে দিয়ে ওই অসহায় শিশুগুলির মুখে একটু হাঁসি ফুটিয়ে তুলতে চেয়েছেন। আমরা তাদের কাছে কৃতজ্ঞ।”

সোসাইটির অন্যতম সদস্য তথা বাসুদেবপুর বিদ্যাসাগর বিদ্যাপীঠের সহকারি শিক্ষক গৌতম সিনহা বলেন, “আমাদের সোসাইটির উদ্যেশ্যই হচ্ছে অসহায় মানুষের পাশে নিঃস্বার্থ ভাবে দাঁড়ানো। এবার পুজোয় অসহায় শিশুদের হাতে নতুন জামা তুলে দিতে চাই। সমাজের মানুষ যদি আমাদের সঙ্গে থাকে তাহলে আমরা ভবিষ্যতে আরও বেশি সংখ্যাক মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারব।”

সোসাইটির আর এক সদস্য তথা রাজনগর ইউনিয়ন স্কুলের সহকারী শিক্ষক রামকৃষ্ণ দত্ত বলেন, “জঙ্গলমহলের এমন কিছু গ্রাম আছে যেখানে নতুন জামা পরে শিশুরা দুর্গাপুজো দেখতে যাবে, এটাই একটা স্বপ্ন। আমরা চাই বেশি সংখ্যক শিশুর এই স্বপ্ন পুরণ করতে।”

ডিউস সারা বছরই কোনও না কোনও কর্মসূচি নিয়ে থাকে। সংস্থার তরফে আবেদন করা হয়েছে এবার পুজোয় যদি সবাই নিজেদের সাধ্যমত অসহায় শিশুদের একটু সাহায্য করে তাহলে ওরাও নতুন জামা পরে দুগ্গা ঠাকুর দেখতে যেতে পারবে। ডিউসের মাধ্যমে দুঃস্থ, অসহায় ও পথশিশুদের হাতে নতুন পোশাক তুলে দিতে যোগাযোগ করতে পারেন।

Call / WhatsApp : 8001004642, 9932599132, 9735644531

email : [email protected]


Share with Friends

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *